করোনা সুরক্ষায় মাস্ক ব্যবহারে ত্বকে অ্যালার্জি, কী করবেন

Health News

মহামারী করোনা  সুরক্ষা দিতে  মাস্কের ব্যবহার অপরিহার্য হয়ে উঠেছে। সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা দিতে সবাইকে মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়ে আসছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।  

তবে দীর্ঘক্ষণ মাস্ক পরে থাকার কারণে নাক ও গালে হতে পারে র‌্যাশ। অ্যালার্জি, জ্বালাভাব, ত্বকে ব্যথা ও দাগও দেখা দিতে পারে কোনো কোনো সময়। ফলে নিজের অজান্তে হয়ে যেতে পারে ত্বকের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি।

কিছু নিয়ম মেনে মাস্ক পরলে ত্বকের অ্যালার্জির সমস্যা অনেকটাই রোধ করা সম্ভব। 

১. ত্বক পরিষ্কার করে মাস্ক পরুন। মাস্ক পরার আগে ভালো করে ত্বক পরিষ্কার করে নিলে ব়্যাশ, ব্রন বা অ্যালার্জি হওয়ার আশঙ্কা কমবে। ভালো ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ওয়াটার বেসড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। পাশাপাশি মাস্ক পরার আগে কোনো অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বা অ্যান্টিইনফ্লেম্যাটরি ক্রিম লাগিয়ে নেয়া যেতে পারে।

২. মাস্ক খোলার পর ভালো করে মুখ ধুয়ে নিন। মাস্ক খোলার পর প্রথমে ভালো করে হাত পরিষ্কার করে নিতে হবে। এর পর মুখ পরিষ্কার করতে হবে। মুখ পরিষ্কারের পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

৩.  আগে থেকেই যাদের ত্বকে ব্রণের রয়েছে ও মাস্ক পরলে এমন সমস্যা হয়, তারা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

৪. চুলকালে বা ব়্যাশ হলে হাত দিবেন না। বেশি চুলকালে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

৫. ত্বকে শসা ব্যবহার করতে পারেন। শসা ত্বককে ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে। ত্বক মসৃণ করে।

৬. মাস্ক ব্যবহার করলে যাদের র‌্যাশ ওঠে তাদের ডিজপোজেবল মাস্ক ব্যবহার করা ভালো। এ ধরনের মাস্কে ব্যাকটেরিয়া তৈরি হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে।

৭. মাস্ক পরার অন্তত ৩০ মিনিট আগে লাগাতে হবে ময়েশ্চারযুক্ত ক্রিম। মাস্কের ভেতরের দিকটা সবসময় রাখতে হবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন।